বাংলা উক্তি
6 December 2018 at 11:46 AM
(বাংলা উক্তি)

বিচারক: তুমি ঐ মেয়েটিকে ধর্ষন করলে কেন? আসামী: আর বলবেন না স্যার, এত ছোট ছোট পশ্চিমা কাপড় পড়ছে। যা করছি ঠিকই আছে। জিন্স, টপস পরছিলো।


বিচারক: তো ছোট কাপড় চোপড়ই দায়ী? উপস্থিত জনগণঃ জি স্যার, পর্দা নাই, ধর্ষণ করবে না তো কি করবে। ... বিচারকঃ ঠিক আছে যাও, এখন থেকে সব মেয়েকে বাঙালি কাপড় পড়ার হুকুম দিলাম। কোন ছোটখাটো ড্রেস।



কিছুদিন পর-


বিচারক: তুমি আবার মেয়েটির শ্লীললতাহানী করছো। এইবার তো সে বাঙালী কাপড়ই পড়ছিলো! আসামী: স্যার, আর বলবেন না। শাড়ি পড়ছে, পেট দেখা যায়, পিঠ দেখা যায়। এগুলা সহ্য করা যায়? সব দোষ পোশাক আশাকের।


বিচারক: ওকে, এখন থেকে সবাইকে হিজাব পড়ার হুকুম করে দিলাম। আসামী: ধন্যবাদ। নারীজাতি এবার বেঁচে গেলো।


কিছুদিন পর-


বিচারক: তুমি আবার ঐ মেয়েকে উত্যক্ত করছো, এইবার তো সে হিজাব পড়ছে, সমস্যা কই? আসামী: আর বলবেন না স্যার, হিজাবে মুখ দেখা যায়। উপর দিয়ে শরীর বোঝা যায়, হাত দেখা যায়, চোখ দেখা যায়। এভাবে দেখলে কিভাবে ঠিক থাকি? ধর্ষণ তো হবেই হুজুর! বিচারক: ঠিক ঠিক, যাও ঢোলা বড় বোরকা পড়বে। সব ঢাকা, চোখেও কালো কাপড়। হাতে হাত মোজা। আসামী: বাচালেন হুজুর। পোশাক ঠিক করলেই ধর্ষন শ্লীলতাহানী করবো না আর।


কিছু দিন পর-


বিচারক: আশ্চর্য, তুমি মেয়েটিকে আবার রেপ করলা? আসামী:না মানে ইয়ে..... বিচারক: এইবার কি কারন দেখাবা ? আসামী: না মানে.... বিচারক:ত্যানা প্যাচাবা না.... সরাসরি বলো আসামী: ইয়ে, বোরকার কালার অনেক উজ্জ্বল ছিলো, এই রঙ দেখলে কারো মাথা ঠিক থাকে ?


(ডিসেম্বর ২৯, ২০১২)


ফুটনোটঃ স্ট্যাটাসের জন্য আগেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। কারন এই দেশে সত্য বলা বারন। আর আমি নাস্তিক না। - Tanzir Islam Britto.








 
Like
Comment
 

Total 0 comments


Add Comment
 
Related Post
Random Post